এ পি জে আবদুল কালাম সাহেব এর সেরা ৫টি বাণী। 5 APJ Abdul Kalam quotes.

5 APJ Abdul Kalam quote
এপিজে আব্দুল কালাম
By M. Prasanna Kumar from Chennai, India – ‘Bharat Ratna’ Dr. A.P.J. Abdul Kalam, CC BY-SA 2.0, Link

তিনি ছিলেন ভারতের রকেট সাইন্সের রূপকার। তার হাতে ধরেই ভারত রকেট সাইন্সের জগতে প্রবেশ করে। দুই দুই বার ভারতের সর্বোচ্চ পদক জয়ী এ বিজ্ঞানী শেষ বয়সে রাষ্ট্রপতি হলেও জীবন যাপন করেছেন সাধারণের চেয়েও সাধারণ ভাবে । তার ব্যাপারে একটি বিস্তারিত লেখা ব্লগে আছে, চাইলে তা দেখে নিতে পারেন এখানে- এপিজে আব্দুল কালামের জীবনের গল্প। আজকে জেনে নেই তার বিখ্যাত উক্তি গুলোর মধ্যে থেকে ৫টি বাণী।

১। আমাদের হাল ছেড়ে দেয়া উচিত নয় এবং সমস্যা গুলোকে আমাদের পরাজিত করার সুযোগ দেয়া উচিত নয়। 

আমরা বিভিন্ন সমস্যায় ভেঙ্গে পরি, হতাশ হয়ে পরি। এমন একটা অবস্থায় নিজেকে নিয়ে যাই যেখানে নিজের মন এটা ভাবতে বাধ্য হয় যে হয়তো এই সমস্যা কখনো ঠিক হবেনা। কিন্তু যদি আমরা ধইর্যের সহকারে তা মোকাবেলা করি এবং নিজের ভিতরে এই বিশ্বাস স্থাপন করতে পারি যে , সব সমস্যাই সমাধানের যোগ্য তবে আমরা দেখবো আমাদের ইচ্ছা শক্তির কাছে সে সমস্যা পরাজিত হয়েছে।

২। আপনি যদি সূর্যের মতো চমকাতে চান তবে আগে সূর্যের মতো নিজেকে পোড়াতে শিখুন।

আমরা অনকেই দেখি , আমাদের আশে পাশে যদি খুব উন্নতি করে তবে কেউ কেউ তাকে ঈর্ষা করে বা যারা হিংসে করেননা তারাও ভাবেন হয়তো লোকটি ভাগ্যগুণে এমন সাফল্য পেয়ে গেছেন, অথবা জন্মগত কোন মেধার জোরে পেয়ে গেছেন তাঁর চমকপ্রদ সাফল্য । কিন্তু আসল কথা হচ্ছে আপনি যদি সফল হতে চান তবে অবশ্যই কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।  কারন আপনি যে পরিমান আলো ছড়াতে চান সে পরিমান জ্বলানী ত আপনাকে পোড়াতে হবেই।
৩। একটি ভাল বই একশত বন্ধুর সমান, কিন্তু একজন ভাল বন্ধু একটি লাইব্রেরীর সমান ।

আমাদের জীবনে আমরা ছোট বেলায় অসংখ্য বন্ধু তৈরি করি। কিন্তু বয়স যতই বাড়তে থাকে বন্ধুর সংখ্যা ততই কমতে থাকে। এর কারন কি জানেন ? কারন বয়সের সাথে সাথে আমরা আমাদের ভাল মন্দ গুলো বুঝতে শিখি । জ্ঞানের বিকাশ হওয়াতে আমাদের মানুষের সাথে মেশার বলয়টা শুধু পছন্দের এবং সমভাবনার মানুষের মধ্যে সীমাবদ্ধ করে নেই। বইকে বলা হয় মানুষের সবচেয়ে ভালো বন্ধু কারন সে আপনাকে সে শুধু জ্ঞান দিয়েই যায় । বিনিময়ে কিছু চায়না। তাই একটি ভাল বই আপনাকে একশ জন বন্ধুর চেয়ে বেশি উপকার করবে। কিন্ত একজন জ্ঞানী বন্ধু আপনাকে আপনার জীবনের প্রতিটি পদে সহায়তা করতে পারবে । তাই একজন ভাল বন্ধুকে এপিজে আব্দুল কালাম একটি লাইব্রেরীর সাথে তুলনা করেছেন ।

৪। আপনর স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নেওয়ার আগে স্বপ্নটা আপনাকে দেখতে হবে।

আমরা সবাই একটা সময় কোন কিছু নিয়ে স্বপ্ন দেখি , হয়তো কেউ নিজের জীবনে খুব বড় কিছু করার বা কেউ কেউ হয়তো দেখেন মানুষের জন্য এমন কিছু করে যাওয়ার যা দিয়ে মানব জাতির কল্যান হবে এবং মানুষ তাকে পৃথিবী ছেড়ে যাওয়ার পরেও মনে করবে। কিন্তু আমরা যখন আস্তে আস্তে কৈশোর ছেড়ে যৌবন পার করতে থাকি , তখন বাস্তবতা এবং পারিপার্শ্বিক দায়িত্বের কারনে বা বেশিরভাগেরই অলসতা বা ” আমার দেখা স্বপ্নটা বাস্তব সম্মত ছিলনা” এই চিন্তার কারনে সেই দেখা স্বপ্নটি ধীরে ধীরে আবছা কুয়াশাচ্ছন্ন হতে হতে হারিয়ে যায়। কিন্তু আপনি যদি আপনার স্বপ্নে অটল থাকেন তবে এর প্রতিদান আপনি পাবেনই । বিশ্বের ১০ ধনী দের একজন ওয়ারেন বাফেট একদিন তাঁর এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন “আমি ছোট বেলা থেকেই জানতাম আমি একদিন অনেক ধনী হবো, এবং আমি তা বলতাম।” এখন তিনি আসলেই পৃথীবির সেরা ধনীদের একজন। তাই নিজের দেখা স্বপ্ন পূরণ করতে তা প্রতিদিন দেখুন , তা বাস্তবে পরিনত করতে প্রতিদিন ছোট করে হলেও সামনের দিক একটি পা ফেলুন।

৫। কাব্য হয় সর্বোচ্চ খুশি থেকে তৈরি হয় নয়তোবা গভীরতম কষ্ট থেকে।

“কষ্ট থেকে কাব্যের সৃষ্টি” আমরা আমাদের জীবনে অনেক সময় এমন পরিস্থিতিতে পরি যা আমাদের নিদারুন কষ্টে ফেলে দেয়। মানসিক কিংবা শারীরিক প্রতিটি কষ্টই আমাদের নতুন কিছু শেখায়। আমরা সে সময়টাতে বাস্তবতা সম্বন্ধে যা শিখতে বা বুঝতে পারি যখন সাধারণ সময় পার করি তখন তা নিয়ে খুব একটা ভাবিনা। যেমন টা ভেবেছিলেন ক্যান্সার আক্রান্ত আলী বানাত । তিনি যখন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তখন তিনি আসলে জীবনের নতুন এক মানে খুজে পান। আমরা ঠিকই একই ভাবে স্টিভ জবসকেও দেখতে পাই অসুস্থ অবস্থায় জীবন সম্পর্কে তাঁর জীবনের সবচেয়ে মূল্যবান ভাবনা  গুলো শেয়ার করতে। তেমনি আমরা যখন কোন মানসিক কষ্টে পরি তখনও আমরা বাস্তবতার জ্ঞান লাভ করি।
অনেক তো হলো কষ্টের কথা , কিন্তু এটিও সত্যি যে আপনি যদি আপনার খুশির সর্বোচ্চ অবস্থায় থাকেন তবেও আপনি জীবনের এমন কিছু জিনিশ আবিস্কার করতে পারবেন যা কেউ পায়নি। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য আমরা কষ্টের চরম সীমা তো বুঝতে পারি ,কিন্তু সুখে যখন থাকি তাঁর সীমাটা আমরা বুঝতে পারিনা।

আজকে এ পর্যন্তই । আশাকরি উক্তি গুলোর গভীরতা এবং তাৎপর্য আপনাদের মনকে ভাবার খোড়াক জোগাবে ।

নিয়মিত আমাদের পোস্ট গুলো পেতে আমাদের সাথে ফেসবুক এবং টুইটারে সংযুক্ত থাকুন। এবং প্রতিদিন ভিসিট করুন আমাদের সাইট আগামীর বাংলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *