ঘন, কালো, উজ্জ্বল ও লম্বা চুল পেতে টিপস। Tips for beautiful shiny hair

5 Tips for beautiful hair

 

“চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা”

নারীর চুল তার রুপের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। বাঙ্গালী নারী যতই সুন্দর হোক না কেন তার যদি উজ্জ্বল ঘন কালো চুল না থাকে তাহলে তার সৌন্দর্য যেন ঠিক মত ফুটে উঠে না। উজ্জ্বল ও ঘন কালো বড় চুল বাঙ্গালী নারীর রুপের অহংকার। আজকের এই আর্টিকেলে ঘন কালো উজ্জ্বল চুলের জন্য কিছু টিপস দেবো যা আপনাদের সকলের উপকারে আসবে।

১। খাবারের ব্যাপারে সচেতন হনঃ আমাদের খাবারের উপর আমাদের পুরো শরীর ও মনের ভালো থাকা নির্ভর করে। তেমনি ঘন কালো ও সুন্দর চুলের জন্যেও খাবারের ব্যাপারে সচেতন হওয়া উচিত। চুলের ধরনের উপরে নির্ভর করে আপনার খাবারের অভ্যাস পরিবর্তন করুন।

  • সাধারণ চুলঃ মাছ, মুরগী, ডাল এবং সব্জি খান।
  • শুষ্ক চুলঃ সবুজ কাঁচা সব্জি, ডাল, লাল চালের ভাত, কলা, বাদাম ও ভিটামিন ই সাপ্লিমেন্ট খান।
  • তৈলাক্ত চুলঃ সবুজ শাক সব্জি, সালাদ, ফ্রেশ ফলমূল ও দই খান।

২। ন্যাচারাল শ্যাম্পু ব্যবহার করুনঃ সারাদিনে সবার চুলেই প্রচুর ধুলাবালি আটকায় যার ফলে চুলের লোমকূপ আটকে গিয়ে মাথায় ব্রণ হয় ও চুল পড়ে যায়। তাই সবারই উচিত চুল পরিষ্কার রাখার জন্য ভালো ব্রান্ডের কোন ন্যাচারাল শ্যাম্পু ব্যবহার করা। অনেক স্টং শ্যাম্পু আপনার চুল তো পরিষ্কার করবে কিন্তু এটার ক্যামিকেল ইফেক্ট আপনার দীর্ঘ মেয়াদে চুলের ক্ষতি করতে পারে। তাই সবসময় চুলের সাথে মানানসই একটা ন্যাচারাল শ্যাম্পু ব্যাবহার করতে পারেন। এটা এতই জরুরী আপনি একজন এক্সপার্ট বিউটিশিয়ানেরও পরামর্শ নিতে পারেন।

৩। ডিম ব্যবহার করুনঃ ডিম আপনার চুলের জন্য সবচেয়ে ভালো একটা কন্ডিশনার। ডিমের কুসুমে প্রচুর প্রোটিন ও ফ্যাট আছে যা চুলকে ময়েস্ট করতে সাহায্য করে। শুষ্ক চুলের জন্য চুলের গোঁড়ায় ডিমের কুসুম ব্যবহার করুন এবং তৈলাক্ত চুলের জন্য চুলের গোঁড়ায় ডিমের সাদা অংশ লাগান। কিছুক্ষন পরে হালকা গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৪। মধু ও অলিচ অয়েল লাগানঃ সুর্যের আলো ও তাপ চুলের উপর অনেক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। এই ক্ষতিকর প্রভাব থেকে চুল বাঁচাতে মধু ও অলিভ অয়েল লাগান। আধা কাপ মধু ও ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে চুলে  লাগান। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। অলিভ অয়েল একটা খুবই ভালো ন্যাচারাল কন্ডিশনার অন্যদিকে মধুর রয়েছে জীবাণুনাশক এন্টি ব্যাক্টেরিয়াল গুণ। দুইটার মিশ্রন আপনার চুল সুন্দর ও উজ্জ্বল করতে সাহায্য করবে।

৫। চুল পড়া রোধে এলোভেরা ব্যবহার করুনঃ প্রতিদিনই আমাদের কিছু না কিছু চুল পরে কিন্তু তা আবার গজায় কিছুদিনের মধ্যে। কিন্তু এই চুল পড়া যখন অস্বাভাবিক মাত্রায় হয় তখন তা রোধে আমাদের সবার ব্যবস্থা নেয়া উচিত। চুল পড়া রোধে এলোভেরা একটা কার্যকর সমাধান হতে পারে।

  •   ১/২ টেবিল চামচ লেবুর রসের সাথে এলোভেরা ভালো মত মেশান।
  •  এরপরে দুই টেবিল চামচ নারকেল তেল দিন তাতে।
  •  ভালো মত সময় নিয়ে পুরো চুলে লাগান মিশ্রণটি।
  •  ২০ মিনিট রেখে তারপরে ধুয়ে ফেলুন।

এই পর্যন্তই থাক আজ। উপরের পরামর্শগুলি পড়ে  যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিবেন এবং আমাদের সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *