সেরা ১০ অনলাইন শপিং সাইট | Online Shopping BD top 10 sites

পৃথিবীর মানব সভ্যতা শুরুর পর সবচেয়ে পুরোনো কাজ গুলোর মধ্যে পন্য কেনাকাটা বা শপিং একটি।

বর্তমানে ইন্টারনেটের কৃপায় তা চলে এসেছে একদম হাতের মুঠোয়। এখন ই-কমার্স সাইট গুলো হয়ে উঠেছে সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল।

বাংলাদেশে এই সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছে daraz, Evaly, chaldal, Rokomari এর মতো আরো কিছু অনলাইন শপিং ওয়েব সাইট।

চলুন তাহলে জেনে নেই কোন শপিং সাইট গুলো মানুষের দৈনন্দিন কেনাকাটাকে সহজ করছে ।


বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ১০টি অনলাইন শপিং সাইট এর তালিকা | Online Shopping BD top10 sites list



 

১. দারাজ1. daraz.com.bd
২. ইভ্যালি2. evaly.com.bd
৩. আজকের ডিল3. ajkerdeal.com
৪. প্রিয়শপ4. priyoshop.com
৫. অথবা5. othoba.com
৬. চালডাল6. chaldal.com
৭. পিকাবো7. pickaboo.com
৮. রকমারি8. rokomari.com
৯. বিডিশপ9. bdshop.com
১০. ফুডপান্ডা10.foodpanda.com.bd

 

দারাজঃ

বাংলাদেশে অনলাইন শপিং এর বিপ্লব ঘটা মূলত দারাজ এর মাধ্যমেই শুরু। এর জন্ম হয়েছিল ২০১২সালে মূলত পাকিস্তানে।

এরপর তা কয়েক হাত ঘুরে এখন চীন এর বিজনেস জায়েন্ট আলিবাবা ডট কম (alibaba.com) দারায এর মালিক।

২০১৫ সালে বাংলাদেশ এবং মায়ানমারে তাদের ব্যবসা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

বাংলাদেশ ছাড়াও বর্তমানে পাকিস্তান ,মায়ানমার , নেপাল ,শ্রীলঙ্কা সহ দক্ষিন – পুর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশে পণ্য সেবা দিয়ে থাকে।

২০১৭ সালে তারা বাংলাদেশের অন্য একটি ই-কমার্স সাইট “কেইমু” কে কিনে নেয় এবং ব্যাবসার পরিধি বাড়ায়।

সেরা ১০ অনলাইন শপিং সাইট- আগামীর বাংলা
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এবং জনপ্রিয় শপিং সাইট গুলোর তালিকা

  তাদের ব্যবসায়ীক ক্যারিয়ারে কোম্পানিটি “ফাস্টেস্ট গ্রোয়িং ব্র্যান্ড বাংলাদেশ” পুরষ্কার অর্জন করে। দারাজ অনলাইন শপিং বর্তমানে বাংলাদেশের অনলাইনে কেনাকাটার একটি বিশ্বস্থ প্রতিষ্ঠান।

এখানে মেয়েদের ড্রেস,ছেলেদের ফ্যাশন প্রোডাক্টস, বাচ্চাদের পোশাক, মোবাইল, ইলেক্ট্রনিক্স সহ সব ধরনের পন্য পাওয়া যায়।

দারাজ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মূল্যছাড় এবং আকর্ষনীয় অফার দিয়ে থাকে। এর মধ্যে দারাজ অনলাইন শপিং ১১ ১১ কিংবা দারাজ ১০.১০ ক্যাম্পেইন (10.10 সেল ডিস্কাউন্ট অফার) অথবা এ বছরের মতো দারাজ সেল ১২.১২ (daraz 12.12 sale 2021) আফার গুলো সবচেয়ে আকর্ষনীয়।

এই সময় বড় ডিস্কাউন্ট বা ফ্রি শিপিং এর মাধ্যমে পন্য দ্রুততম সময়ে দক্ষ ডেলেভারিম্যান এর মাধ্যমে হোম ডেলিভারি দেয়া হয় ।

দারাজ বর্তমানে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের অফিশিয়াল স্পন্সর হিসেবে আছে। দারাজের সেভাবে কোন শোরুম নেই, তবে দারাজের কর্পোরেট হেড অফিস গুলশানে।

এছাড়াও দারাজের সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন ডেলিভারি হাব রয়েছে। দারাজ থেকে শপিং করতে গুগলে সার্চ করুন “daraz online sopping” লিখে।

অথবা দারাজ ওয়েব সাইটে daraz app download অপশন থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন দারাজ এ্যাপ। আপনার অনলাইন কেনাকাটা হোক নিরাপদ।



ইভ্যালিঃ

বাংলাদেশের ইকমার্স সেক্টরে সাইক্লোন সৃষ্টি করা অনলাইন শপিং সেন্টারের নাম ইভ্যালী।

২০১৮ সালের মাঝামাঝি থেকে ইভ্যালি প্রচারণা শুরু করে এবং ডিসেম্বর ২০১৮ তে ইভ্যালির কার্যক্রম শুরু হয়।

ইভ্যালি আসার আগে বাংলাদেশের অনলাইন শপিং জগতে একচ্ছত্র আধিপত্যে ছিল দারাজ বাংলাদেশ।

তাই বাংলাদেশের অনলাইন মার্কেট প্লেসে নিজেদের বড় অবস্থান তৈরি করতে ইভ্যালি মূল্যছাড় ,১০০-১৫০% ক্যাশব্যাক এর মতো অফার দিতে শুরু করে।

এর মধ্যে সবচেয়ে সাড়া জাগানো অফার গুলো হচ্ছে,- সাইক্লোন অফার (evaly cyclone offer),ইভ্যালি আর্থকোয়াক, ইভ্যালি বাইক অফার(evaly bike), ইভ্যালি ক্যাশব্যাক অফার, ই-ফুড অফার সহ আরো অনেক লোভনীয় অফার।

ইভ্যালি বেশি পরিচিতি পায় তাদের বাইক অফারের জন্য।দামি দামি ব্র্যান্ডেড মটোরসাইকেল এখানে তারা প্রায় অর্ধেক মূল্যে গ্রাহকের হাতে তুলে দেয়।

ইভ্যালীর মোবাইল অফার(e-valy mobile offer) গুলোও ক্রেতাদের মধ্যে আকর্ষণ সৃষ্টি করে । এই অফার গুলোতে ইভ্যালি গ্রাহকদের টাকা আগ্রীম সংগ্রহ করে ৪৫ দিনের মধ্যে প্রোডাক্ট সরবরাহ করতো।

তবে অনেক গ্রাহক অভিযোগ করতে থাকেন যে তারা সময়মত ইভ্যালির প্রোডাক্ট পাচ্ছেন না।

তখন বানিজ্য মন্ত্রনালয় ১০ দিনের মধ্যে পন্য ডেলিভারি দেয়ার নিয়ম জারি করে। এবং ইভ্যালি তখন টি টেন (evaly T10 offer) চালু করে।

কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংকের রিপোর্ট এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের নেগেটিভ ইভ্যালি নিউজের কারনে ইভ্যালির সাথে অনেক ব্যাংক তাদের লেনদেন স্থগিত করে।

এবং এতে তারল্য সংকটে পরা ইভ্যালি পন্য ডেলিভারি দিতে আরো হিমশিম খেতে শুরু করে।

এবং এ অবস্থায় নিয়মিত গ্রাহকদের মনে ভয় জাগতে শুরু করে যে এই বুঝি ইভ্যালি বন্ধ হলো।

কিন্তু তখনই বাংলাদেশের বিখ্যাত শিল্প গ্রুপ যমুনা গ্রুপ থেকে ১০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ এর প্রস্তাব আসে। এর পর যমুনা মুখ ফিরিয়ে নিলে চাপে পরে কোম্পানিটি । এর সিইও রাসেল স্ত্রী সহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দ্বারা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক হন। এ সময় ইভ্যালির কার্যক্রম পরিচালনার জন্য হাইকোর্টের মাধ্যমে দায়িত্ব পান সহকারি সচিব মাহাবুবুল কবির মিলন।

ইভ্যালিতে শপিং করতে সরাসরি যেতে পারেন তাদের ওয়েব সাইটে কিংবা ডাউনলোড করতে পারেন evaly app। শুভ হোক আপনার অনলাইন কেনাকাটা।

সেরা ১০ অনলাইন শপিং সাইট
ইভ্যালি এবং রকমারি বাংলাদেশের দুই জনপ্রিয় ভিন্নধর্মী প্রতিষ্ঠান। 



আজকের ডীলঃ

বাংলাদেশে অনলাইন শপিং এর শুরুর দিকে যে কয়টি অনলাইন শপিং সাইট ব্যবসা শুরু করে তার মধ্যে আজকেরডিল(ajkerdea) অন্যতম।

তারা “সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল” এই স্লোগানে নিজেদের যাত্রা শুরু করে। ২০১১ সালের ২০ নভেম্বর তারা যাত্রা শুরু করে।

আজকের ডিল মূলত বাংলাদেশের জনপ্রিয় জব সাইট বিডি জবস ডট কমের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।

আজকের ডিল অনলাইন শপিং এর মূল পন্য গুলো মূলত মেয়েদের ফ্যাশন, মেয়েদের ড্রেস, ছেলেদের ফ্যাশান, এছাড়া গেজেটস এবং মোবাইল এক্সেসরিজ এর জন্যও আজকের ডিল প্রসিদ্ধ।

আজকের ডিল বাজারের সেরা দাম যাচাই করে সেখান থেকে ডিস্কাউন্ট অফারে গ্রাহককে পন্য সরবরাহ করে।

এছাড়া সারা বাংলাদেশে তারা দ্রুততম সময়ে হোম ডেলিভারি দিয়ে থাকে।কিছু কিছু পন্যের ক্ষেত্রে ফ্রি হোম ডেলিভারি দেয়া হয়।



প্রিয়শপঃ

প্রিয়শপ ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত একট অনলাইন শপিং সাইট। বর্তমানে এই ই-কমার্স সাইটটি ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

priyoshop.com এ ছেলে মেয়েদের ড্রেস , ফ্যাশন এক্সেসরিস, মোবাইল ফোন, কিডজ আইটেম,বিভিন্ন ধরনের বই, হোম এপ্লায়েন্স সহ নিত্য প্রয়োজোনীয় অনেক পন্য বিক্রয় হয়।

ঢাকা এবং এর আসে পাশের জেলা গুলোতে প্রিয়শপ নিজেস্ব ডেলিভারির মাধ্যমে প্ন্য সরবরাহ করে।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এরা বাংলালিংক টাচ পয়েন্ট থেকে তাদের গ্রাহকদের পন্য গ্রহন করার ব্যাবস্থা করেছে ।

এছারাও প্রিয়শপ কাজ করছে চীন এর বিখ্যাত ই-কমার্স গ্রুপ আলিবাবা ডট কমের টাওবাও এবং টিমল এর সাথে।

প্রিয়শপ এর মাধম্যে এই দুইটি সাইট থেকে দেশীয় মুদ্রায় এবং পেপালের মাধ্যমে পেমেন্ট দিয়ে পন্য ক্রয় করা সম্ভব।

প্রিয়শপে শপিং করতে যেতে পারেন তাদের শপিং সাইটে বা ডাউনলোড করতে পারেন প্রিয়শপ ডট কমের মোবাইল এ্যাপ ।



অথবাঃ

বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় কর্পোরেট জায়েন্ট প্রাণ-আর এফ এল গ্রুপের সিস্টার কন্সার্ন প্রতিষ্ঠান অথবা ডটকম।

এই অনলাইন শপিং সাইটটি সব ধরনের পন্য অফার করলেও প্রাণ আর এফ এল এর সকল প্রতিষ্ঠানের পন্য গুলোকে বেশি প্রাধান্য দেয়।

প্রাণের এবং RFLপন্যের বাইরেও othoba.com mobile অফার গুলো গ্রাহকের নজর কেড়েছে। অনান্য অনলাইন শপিং সাইট থেকে অথবা ডটকম এর একটি পার্থক্য হলো তারা মিঠাই(Mithai) এবং টেস্টি ট্রিটের(Tasty Treat) মত জনপ্রিয় ফুড চেইন গুলোর খাবার অনলাইন হোম ডেলেভারি দেয়।

এগুলো ছাড়াও অথবা তে বিভিন্ন মূল্যছাড়ে পন্য বিক্রি হয়। যেমন কিছু বই এর উপর ৫০% এর বেশি পর্যন্ত ডিস্কাউন্ট দেয়।

তাছাড়া বাকি অনান্য অনলাইন শপের মতো ছেলেদের ফ্যাশান, মেয়েদের ডিজাইন ড্রেস, কিডজ জোন, ইলেক্টনিক্স, হোম এপ্লায়েন্স এর মতো ট্রেডিশনাল সকল প্রডাক্ট তো রয়েছেই তাদের পন্য তালিকায়।

অথবা থেকে শপিং করতে ভিসিট করতে পারেন তাদের সাইট কিংবা প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারেন তাদের শপিং এ্যপ।

 

 

চালডালঃ

যদি আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হয়, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মুদি দোকানের নাম কি?

আপনি চোখ বন্ধ করে বলে দিতে পারেন চালডাল ডটকম এর নাম। বাংলাদেশের সের স্টার্টাপ গুলোর মধ্যে চাল ডাল ডট কম অন্যতম।

 

২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানটি দেশে মুদি দোকানের কন্সেপটকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়।

চালডাল তাদের নিজেস্ব ওয়েব সাইট এবং চালডাল ডট কমের মোবাইল এ্যপ এর মাধ্যমে মুদিপণ্য, মাছ, মাংস, সবজি, ফল এবং দুগ্ধ জাতীয় বিভিন্ন পন্য বিক্রি করে থাকে।

তাদের নিজেস্ব ৭টি গুদাম ঘর রয়েছে যেখান থেকে তারা গুদামজাত পন্য  সরবরাহ করে থাকে।

চালডাল ডট কম ২০১৫ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের স্টার্টআপ এসিষ্টার ‘ওয়াই কম্বিনেটর’ করা ৫০০ সেরা স্টার্টাপের মধ্যে ৯ম স্থান দখল করে।

এছাড়াও ২০১৭ সালে এটি “দ্যা ডেইলি স্টার ই-বিজনেস অফ দ্যা ইয়ার” নির্বাচিত হয়।

আপনার মুদি পণ্যের অনলাইন শপিং এর জন্য আপনি চোখবন্ধ করে ভরসা রাখতে পারেন চালডাল ডট কমের উপর।

 

 

পিকাবুঃ

নিশ ভিত্তিক অনলাইন শপিং সাইটের মধ্যে পিকাবু ডট কম বর্তমানে বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

মোবাইল ফোন,ইলেক্ট্রনিক্স এবং গেজেটস এর অনলাইন কেনাকাটার জন্য পিকাবু ডট কম বিশ্বস্ত নাম হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে।

পিকাবুতে রয়েছে কিস্তিতে(ইএমাইEMI) মোবাইল কেনার সুবিধা এবং তিন দিনের ইজি রিটার্ন পলিসি।

মোবাইল,স্মার্টফোন এবং মোবাইল এক্সেসরিজ পিকাবুর প্রধান প্রডাক্ট হলেও, সকল ধরনের কম্পিউটার, লেপটপ এবং সকল ধরনের পিসি এক্সেসরিস তারা বিক্রি করে।

তাছাড়া উন্নত মানের গেমিং কন্সোল এন্ড এক্সেসরিজ সরবরাহ করে পিকাবু সুনাম কুরিয়েছে।

পিকাবু থেকে শপিং করতে ভিসিট করুন তাদের ওয়েব সাইট pickaboo.com কিংবা ডাউনলোড করুন তাদের অনলাইন শপিং এ্যাপ।

 

রকমারিঃ

বাংলাদেশে জনপ্রিয় অনলাইন শপিং সাইটের যদি তালিকা করা হয় তবে রকমারি ডট কম প্রথম সারিতে থাকবে।

২০১২ সালের ১৯শে জানুয়ারি রকমারি ডট কম যাত্রা শুরু করে।

রকমারি শুরুতে শুধু বই বিক্রি করলেও বর্তমানে বিভিন্ন টিউটোরিয়াল ভিডিও, অডিও বুক, ক্রীড়া সামগ্রী, শিক্ষা উপকরন সহ বিভিন্ন পন্য বিক্রি করছে।

গতবছর তারা শিশু কিশোর দের মেধা বিকাশে “বিজ্ঞান বাক্স” নামে চমৎকার একটি পন্য নিয়ে এসেছে।

রকমারি থেকে বই কেনার নিয়ম খুবই সহজ। সরাসরি rokomari.com ওয়েব সাইটে গিয়ে বই নির্বাচন করে রকমারি বই অর্ডার করতে পারেন।

রকমারি ঢাকা তে ২-৩ দিনের মধ্যে এবং ঢাকার বাইরে সর্বোচ্চ ৭ দিনের মধ্যে বই ডেলিভারি দিয়ে থাকে।

রকমারি থেকে প্রতিদিন প্রায় তিন হাজার বই বিক্রি হয়।

 

 

বিডিশপঃ

বিডিশপ অনলাইন শপিং এর জগতে খুব বেশি পুরাতন কোন বাজার না হলেও এর ব্যবসায়িক ধরন খুবই ক্রেতা বান্ধব হওয়ায় এর সমসাময়ীক অন্যান্য অনলাইন শপের চেয়ে বিডিশপ ডট কম কে এগিয়ে রেখেছে।

বিডিশপ বাংলাদেশে সর্বপ্রথম এফিলিয়েট সিস্টেম শুরু করেছে যা এখনো অন্য কোন অনলাইন শপিং সাইট শুরু করেনি।

তাদের পন্য আপনার সাইটে এফিলিয়েট করে আপনি আয় করতে পারবেন।

বিডি শপের মুল্য পণ্য মূলত ইলেক্ট্রনিক্স হলেও তারা তাদের পণ্যের পরিধি দিন দিন বাড়িয়ে চলেছে ।

 

 

ফুডপান্ডাঃ

ফুডপান্ডা মূলত জার্মান ভিত্তিক খাবার ডেলেভারি প্রতিষ্ঠান হলেও বর্তমানে বাংলাদেশে খাবার ক্রয় বিক্রয়ের সবচেয়ে বড় সাইট ফুডপান্ডা।

লাখ লাখ রেস্টুরেন্ট তারা নিয়ে এসেছে মানুষের হাতের মুঠোয়। এছাড়া ফুডপান্ডা বাংলাদেশের কয়েকটি বড় শহরে নিজেস্ব ওয়ারহাউস করে সেখান থেকে মুদি পণ্য সরবরাহ করছে।

এতে করে সারাদেশে বেকার যুবকদের জন্য ফুডপান্ডা তৈরি করেছে চাকুরির সুযোগ।

একজন ডেলিভারি ম্যান ৫ ঘন্টা কাজ করে ৫০০-৬০০ টাকার মতো আয় করতে পারেন।

আর ডেলিভারি ম্যান ছাড়াও তাদের বিভিন্ন ওয়ারহাউসে শিক্ষাগত যোগ্যতা HSC পর্যন্ত হলেই অনেকে চাকুরী করতে পারছেন।

 

 

উপসংহারঃ

উপরের নাম্বারিং গুলোকে র‍্যাংকিং ভাবার তেমন কোন সুযোগ নেই । এখানে মোটামুটি আমাদের সবার পরিচিত, অনেক দিন আগে থেকে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া কিংবা আলোড়ন সৃষ্টিকারি অনলাইন শপিং সাইট গুলোকে তুলে ধরা হয়েছে।

বর্তমানে বাংলাদেশে বাগডুম,খাশফুড,শাদমার্ট,জোগান,শপার্সবিডি,শপারু,এসমার্কেট,রেপটো এর মত ভাল ভাল অনলাইন শপিং সাইট কাজ করছে।

এছাড়াও অনেক নতুন নতুন শপিং সাইট দ্রুতগতিতে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। সে অনুযায়ী বাংলাদেশের সেরা দশ অনলাইন শপিং সাইটের তালিকা আপডেটড হতে থাকবে। আপনারা আপনাদের পছন্দের সাইটের নাম কমেন্টে জানান।আমরা ভিসিট করে এখানে আপডেট করে দিবো ধন্যবাদ।


তথ্যসূত্রঃ আগামীর বাংলা

3 thoughts on “সেরা ১০ অনলাইন শপিং সাইট | Online Shopping BD top 10 sites

  • August 5, 2021 at 1:45 pm
    Permalink

    ধন্যবাদ। বাংলাদেশের অনলাইন শপিং সাইট গুলো নিয়ে সুন্দর লিখেছেন৷ daraz, evaly আগের চেয়ে মান ভাল হয়েছে এখন৷

    Reply
    • August 8, 2021 at 12:24 pm
      Permalink

      আপনাকে অনেক ধন্যবাদ অনলাইন শপিং সম্পর্কে আপনার মূল্যবান মতামত প্রকাশের জন্য। সাইটের অন্যান্য আর্টিকেল গুলো সম্বন্ধে মতামত দিলে আমাদের সামনে এগিয়ে যাওয়া আরো অনুপ্রাণিত হবে।
      ধন্যবাদ,
      আগামীর বাংলা

      Reply
  • Pingback: পৃথিবীর সেরা ১০ ধনী ব্যক্তি। Top 10 richest person in the world. - আগামীর বাংলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *